মেয়র আইভীর কাছে নগরবাসীর দাবি...

“শহরে যানজট কমাতে রাস্তা প্রশস্ত করুন”

234
“শহরে যানজট কমাতে রাস্তা প্রশস্ত করুন”

নারায়ণগঞ্জ ফার্স্ট নিউজ:

এবার বঙ্গবন্ধু সড়কের প্রশস্ততা বাড়ানোর জন্য এই সিটি করপোরেশনের মেয়র ডাক্তার সেলিনা হায়াৎ আইভীর কাছে আহবান জানিয়েছেন নগরবাসী অনেকে। তাদো দাবি হলো বঙ্গবন্ধু সড়কের দুই পাশে যে ফুটপাত আছে তার প্রশস্ততা কমিয়ে যেনো রাস্তা প্রশস্ত করা। কেনোনা এমনিতেও ফুটপাত দিয়ে মানুষ হাটতে পারে না। হকাররা দখল করে রাখে। বহিরাগত হকারদের ব্যাবসার জন্যই যেনো এই ফুটপাত নির্মান করা হয়েছে। তাই দাবি উঠেছে বর্তমানে এই রাস্তার দুই পাশে যে ফুটপাত রয়েছে তা কমিয়ে রাস্তা প্রশস্ত করার। কারন বঙ্গবন্ধু সড়ক দিয়ে যে পরিমান যানবাহন চলাচল করে সেই তুলনায় এই রাস্তা একেবারেই সরু। বলা চলে মাত্র দুই লেনের রাস্তা এটি। যার ফলে যানবাহনের আধিক্যের কারনে এই রাস্তায় প্রায় সারাক্ষনই যানজট লেগে থাকে। তাই দুই পাশে ফুটপাতের যে প্রশস্ততা আছে তা অর্ধেক করে বাকী অর্ধেক রাস্তার অন্তর্ভূক্ত করা হলে আরো অনেকটাই প্রশস্ত হবে ঐতিহ্যবাহী বঙ্গবন্ধু সড়কটি।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডাক্তার সেলিনা হায়াৎ আইভী বিগত বছরগুলিতে এই সিটি করপোরেশনের বহু এলাকায় বহু উন্নয়ন করেছেন। বিশেষ করে তার হাতের ছোঁয়ায় একেবারে বদলে গেছে বন্দর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকার চেহারা। ওইসব এলাকায় তিনি বহু নতুন রাস্তা নির্মান করেছেন এবং পূরনো রাস্তাগুলির আধুনিকায়ন করেছেন। সঙ্গে সঙ্গে তিনি জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য গড়ে তুলেছেন পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যাবস্থা। নারায়ণগঞ্জ শহরেও তিনি বহুমুখী উন্নয়ন করেছেন। খাল ও জলাশয়কে কাজে লাগিয়ে নয়ানাভিরাম পার্ক নির্মান করেছেন। যেখানে তিনি ব্যাপক সবুজায়ন করেছেন। এছাড়া এই শহরের আনাচে কানাচে রাস্তাগুলির ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। কিন্তু শহরের প্রানকেন্দ্র হিসাবে পরিচিত বঙ্গবন্ধু সড়ককে তিনি মনমতো গড়ে তুলতে পারেননি। কারন এই রাস্তাটি দুই পাশে বাড়ানোর কোনো সুযোগই ছিলো না।

তবে এই মুহুর্তে নগরবাসী অনেকে মনে করেন রাস্তাটির দুই পাশে যে পরিমান ফুটপাত রয়েছে তা অর্ধেক করলেও মানুষ স্বাচ্ছন্দে হেটে যেতে পারবে। বরং এখন ফুটপাত যথেষ্ট প্রশস্ত হওয়ায় হকাররা দখল করে দোকান বসাচ্ছে গোটা ফুটপাত জুরে। প্রতিদিন ওরা বিপুল পশরা সাজিয়ে বসছে। এতে নগরবাসী ফুটপাত দিয়ে চলাচলই করতে পারছে না। তাই বিগত বছরগুলিতে মেয়র আইভী মানুষের চলাচলের জন্য ফুটপাত দখলমুক্ত করার জন্য বার বার চেষ্ঠা করেছেন। কিন্তু তাতে কোনো লাভ হয় নাই। বরং ফুটপাতের জন্য মেয়রের উপর হামলা পর্যন্ত হয়েছে। তাই নারায়ণগঞ্জের সচেতন মহলের অনেকে মনে করেন এখনই বঙ্গবন্ধু সড়ক প্রশস্ত করে ফুটপাত কমিয়ে অর্ধেক করা যেতে পারে। তাতে এই সড়ক দিয়ে একদিকে যেমন স্বাচ্ছন্দে যানবাহন চলাচল করতে পারবে অপরদিকে তেমনি ফুটপাত দিয়ে মানুষও হাটতেও পারবে। তাই এ ব্যাপারে শিগগিরই মেয়র পদক্ষেপ নেবেন বলে আশা করেন নারায়ণগঞ্জের সাধারন মানুষ।